মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বাজেট

শুভেচ্ছা                                

 

            ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে একটি সুষম বাজেট প্রণয়ন অতিব গুরম্নত্বপূর্ণ বিষয়। ২০১৪-২০১৫ অর্থ বৎসরের বাজেট অত্র পরিষদের ৪র্থ বাজেট। দ্বায়িত্ব গ্রহনের পর বিগত ২০১১-২০১২, ২০১২-২০১৩ ও ২০১৩-২০১৪ অর্থ বৎসরের বাজেট প্রণয়ন করা হয়। প্রণীত বাজেট এবং তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যে বিষয়টি অনুমেয় তা হচ্ছে আভ্যন্তরিন আয় এবং সরকারের নিকট হতে অনুদান যথেষ্ট না পাওয়াই প্রস্তা বিত বাজেট এবং প্রকৃত বাজেটের মধ্যে অসম ব্যবধান থেকে যাচ্ছে। তথাপি এলাকার জনসাধারণের অকুণ্ঠ সমর্থন এবং বিভিন্ন বিভাগে দ্বায়িত্বরত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দের আন্তরিক সহযোগীতায় সীমিত সম্পদের শতভাগ সুষ্ঠ ব্যবহারের ফলে ইতিমধ্যে বেশ কিছু দৃশ্যমান প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। যা অত্র এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে।   

বিগত ২০১২-২০১৩ অর্থ বৎসরের তুলনায় চলতি ২০১৩-২০১৪ অর্থ বৎসরে হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের হার খুব সন্তোষজনক নয়। যেকারনে আদায়কৃত ট্যাক্সের অর্থে ইউনিয়ন পরিষদের আনুষঙ্গিক ব্যয় নির্বাহ করার পর  উলেস্নখযোগ্য তেমন কোন প্রকল্প গ্রহন বা বাস্তবায়ন করা যায়নি। তাই এলাকাবাসীর প্রতি আমার উদ্বাত্ত আহবান আপনাদের উপর ধার্য্যকৃত ইউপি ট্যাক্স পরিশোধ করম্নন। আমার বিশ্বাস অতিতের মত সকল সম্মানীত নাগরিক তাদের উপর ধার্য্য ট্যাক্স পরিশোধ করে তাদের নাগরিক দ্বায়িত্ব পালন করে এলাকার উন্নয়নে অংশ গ্রহন করবেন।

আভ্যন্তরিন এবং সরকারের নিকট হতে প্রাপ্ত সীমিত অর্থের সুনিশ্চিত ব্যবহার করে অতিতের যেকোন সময়ের তুলনায় মাত্র তিন বৎসরে অনেকগুলো দৃশ্যমান প্রকল্প বাসস্তবায়ন করেছি। জনসাধারনের চাহিদার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সর্বাজ্ঞে যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অবকাঠামোগত ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করেছি। নির্বাচনের সময় ইউনিয়বাসী কে দেয়া প্রতিশ্রুতি আমি পুনর্ব্যক্ত করছি। আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান, প্রজ্ঞা, মেধা ও সুচিন্তা দিয়ে বাড়াদী ইউনিয়ন তথা এলাকাবাসীর সার্বিক উন্নয়নে আত্বনিয়োগ করব। এলাকাবাসীর নিকট আমার একটায় চাওয়া আমাকে সময় এবং সুযোগ দিন আমি আপনাদের সেবা দিব।

 

মোঃ তবারক হোসেন

চেয়ারম্যান

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

                   শুভেচ্ছা                                                 

 

উনিয়ন পরিষদের আবশ্যকীয় কর্মকান্ডের মধ্যে বাজেট প্রণয়ন একটি গুরম্নত্বপূর্ণ কার্য্য। একটি সঠিক এবং সুন্দর বাজেটের উপর ইউনিয়নের উন্নয়ন অনেকাংশে নির্ভরশীল। হারদী ইউনিয়ন বৃহৎ এলাকাবেষ্ঠিত অধিক জনবসতিপূর্ণ একটি জনপদ। ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ তবারক হোসেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এবং অত্যন্ত অভিজ্ঞ ব্যক্তি। অত্র ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে তিনি অত্যন্ত আন্তরিক। তার অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান ও সঠিক পরামর্শ অত্র বাজেট প্রণয়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেছে এজন্য তাকে আন্তরিক অভিনন্দন। এছাড়া সকল সদস্যবর্গ সঠিক তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে বাজেট প্রনয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে তাদেরকেও জানাই মোবারকবাদ।

 

          বাজেট বাস্তবায়নে প্রয়োজন জনপ্রতিনিধি এবং সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীর’র সন্মিলিত প্রচেষ্ঠা, জনসাধারনের অংশগ্রহন ও সম্পৃক্ততা । সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় হারদী ইউনিয়ন একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত হোক। এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি। সকলকে ধন্যবাদ।

 

মোঃ আনিছুর রহমান

সচিব

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

ইউপিফরম-১

ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক বাজেট

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলাঃ আলমডাঙ্গা, জেলাঃ চুয়াডাঙ্গা

অর্থমরছরঃ ২০১৪-২০১৫

 

ক্রঃনং

সম্ভাব্য আয়ের খাতসমূহ

পরবর্তী বৎসরের

সম্ভাব্য আয়(টাকা)

(২০১৩-২০১৪)

চলতি বৎসরের বাজেট/

সংশোধিত বাজেট(টাকা)

(২০১৩-২০১৪) 

পূর্ববর্তী বৎসরের

প্রকৃত আয় (টাকা)

(২০১১-২০১২)

(ক)

আগত তহবিল

 

 

 

 

নিজস্ব উৎস

 

 

 

 

১. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর কর

১,০৫,৮৭০/-

১,০০,০০০/-

১৮,২৭৩/-

 

২. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর বকেয়া কর

৭,১৩৬/-

৫০,০০০/-

 

 

৩. রিক্সা/ভ্যান লাইসেন্স ফিস

-

৫,০০০/-

 

 

৪. খোয়াড় ইজারা থেকে প্রাপ্ত

২০,০০০/-

১৫,০০০/=

 

 

৫. গ্রাম আদালত

১৫,০০০/-

১০,০০০/=

 

 

৬. ট্রেড লাইসেন্স ফিস

৪০,৬৮০/-

৩৫,০০০/-

১৩,৩০০/-

 

৭. জন্ম নিবন্ধন ফিস

১০,০০০/-

১৫,০০০/-

৩৪৫০/-

 

৮. কৃষি আবাসিক ভবন হতে ট্যাক্স

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

৯. হাসপাতাল হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

১০. ব্যাংক হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪৫,০০০/-

১৯,২৫০/-

 

 

১১. ইক্ষু ক্রয় কেন্দ্রের উপর কর

-

২০,০০০/-

 

 

১২. হাটবাজার/বিবিধ

১৫,০০০/-

১২,০০০/-

৯,১০৩/-

 

১৩. ওয়ারিশ সূত্রে

৮৫,০০০/-

৫০,০০০/-

 

 

মোট=

৪,২৩,৬৮৬/-

৩,৭৩,২৫০/-

৪৪,১২৬/-

(খ)

সরকারি সূত্রে অনুদানঃ

 

 

 

 

১. সংস্থাপন

 

 

 

 

ক. চেয়ারম্যানের ও সদস্যদের সম্মানী ভাতা

১,৫৫,১০০/-

১,৫৫,৭০০/-

১,৫৫,৭০০/-

 

খ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

৩,৮৪,৯১৫/-

২,৮৮,৭৭০/-

২,৮৮,৭৭০/-

 

গ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

-

৩৩,৫০৫/-

 

 

২.অন্যান্য (উন্নয়ন খাত)

 

 

 

 

ক. ভূমি হস্তান্তরের ১% কর

২,৯৫,০০০/-

২,৫০,০০০/-

১,৭১,০৮১/-

 

খ. লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি)

১২,০০,০০০/-

১০,০০,০০০/-

৯,৯৯,৮৭০/-

 

গ. উপজেলা থেকে প্রাপ্ত এডিপি বরাদ্দ

২,০০,০০০/-

২,০০,০০০/-

১,৮৫,০০০/-

 

ঘ. কাবিখা বরাদ্দ(৩০ মেঃ টনের সমপরিমান অর্থ)

৬,৯০,০০০/-

৮,০০,০০০/=

৫,৫২,০০০/-

 

ঙ. টি আর বরাদ্দ ( ২৫ মেঃ টনের সমপরিমাণ অর্থ)

৫,৭৫,০০০/-

৬,০০,০০০/-

৩,৪৫,০০০/-

 

চ.কাবিখা বরাদ্দ

-

-

-

 

ছ. অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান

৩,০০,০০০/-

২,৫০,০০০/-

২,৭৩,০০০/-

 

স্থানীয় সরকার সূত্রেঃ

 

 

 

(গ)

১. উপজেলা পরিষদ কর্তৃক প্রদত্ত অর্থ(হাট ইজারা থেকে)

 

 

 

 

সর্বমোট আয়=

৪২,২৩,৭০১/-

৩৯,৫১,২২৫/-

৩১,১৪,৫৪৭/-

                                                                   

                                            শুভেচ্ছা                          

 

            ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে একটি সুষম বাজেট প্রণয়ন অতিব গুরম্নত্বপূর্ণ বিষয়। ২০১৩-২০১৪ অর্থ বৎসরের বাজেট অত্র পরিষদের ৩য় বাজেট। দ্বায়িত্ব গ্রহনের পর বিগত ২০১১-২০১২ ও ২০১২-২০১৩  অর্থ বৎসরের বাজেট প্রণয়ন করা হয়। প্রণীত বাজেট এবং তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যে বিষয়টি অনুমেয় তা হচ্ছে আভ্যন্তরিন আয় এবং সরকারের নিকট হতে অনুদান যথেষ্ট না পাওয়াই প্রস্তা বিত বাজেট এবং প্রকৃত বাজেটের মধ্যে অসম ব্যবধান থেকে যাচ্ছে। তথাপি এলাকার জনসাধারণের অকুণ্ঠ সমর্থন এবং বিভিন্ন বিভাগে দ্বায়িত্বরত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দের আন্তরিক সহযোগীতায় সীমিত সম্পদের শতভাগ সুষ্ঠ ব্যবহারের ফলে ইতিমধ্যে বেশ কিছু দৃশ্যমান প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। যা অত্র এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে।   

বিগত ২০১১-২০১২ অর্থ বৎসরের তুলনায় চলতি ২০১২-২০১৩ অর্থ বৎসরে হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের হার খুব সন্তোষজনক নয়। যেকারনে আদায়কৃত ট্যাক্সের অর্থে ইউনিয়ন পরিষদের আনুষঙ্গিক ব্যয় নির্বাহ করার পর  উলেস্নখযোগ্য তেমন কোন প্রকল্প গ্রহন বা বাস্তবায়ন করা যায়নি। তাই এলাকাবাসীর প্রতি আমার উদ্বাত্ত আহবান আপনাদের উপর ধার্য্যকৃত ইউপি ট্যাক্স পরিশোধ করম্নন। আমার বিশ্বাস অতিতের মত সকল সম্মানীত নাগরিক তাদের উপর ধার্য্য ট্যাক্স পরিশোধ করে তাদের নাগরিক দ্বায়িত্ব পালন করে এলাকার উন্নয়নে অংশ গ্রহন করবেন।

আভ্যন্তরিন এবং সরকারের নিকট হতে প্রাপ্ত সীমিত অর্থের সুনিশ্চিত ব্যবহার করে অতিতের যেকোন সময়ের তুলনায় মাত্র দুই বৎসরে অনেকগুলো দৃশ্যমান প্রকল্প বাসস্তবায়ন করেছি। জনসাধারনের চাহিদার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সর্বাজ্ঞে যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অবকাঠামোগত ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করেছি। নির্বাচনের সময় ইউনিয়বাসী কে দেয়া প্রতিশ্রুতি আমি পুনর্ব্যক্ত করছি। আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান, প্রজ্ঞা, মেধা ও সুচিন্তা দিয়ে বাড়াদী ইউনিয়ন তথা এলাকাবাসীর সার্বিক উন্নয়নে আত্বনিয়োগ করব। এলাকাবাসীর নিকট আমার একটায় চাওয়া আমাকে সময় এবং সুযোগ দিন আমি আপনাদের সেবা দিব।

 

মোঃ তবারক হোসেন

চেয়ারম্যান

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

                   শুভেচ্ছা                                    

 

উনিয়ন পরিষদের আবশ্যকীয় কর্মকান্ডের মধ্যে বাজেট প্রণয়ন একটি গুরম্নত্বপূর্ণ কার্য্য। একটি সঠিক এবং সুন্দর বাজেটের উপর ইউনিয়নের উন্নয়ন অনেকাংশে নির্ভরশীল। হারদী ইউনিয়ন বৃহৎ এলাকাবেষ্ঠিত অধিক জনবসতিপূর্ণ একটি জনপদ। ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ তবারক হোসেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এবং অত্যন্ত অভিজ্ঞ ব্যক্তি। অত্র ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে তিনি অত্যন্ত আন্তরিক। তার অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান ও সঠিক পরামর্শ অত্র বাজেট প্রণয়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেছে এজন্য তাকে আন্তরিক অভিনন্দন। এছাড়া সকল সদস্যবর্গ সঠিক তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে বাজেট প্রনয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে তাদেরকেও জানাই মোবারকবাদ।

 

          বাজেট বাস্তবায়নে প্রয়োজন জনপ্রতিনিধি এবং সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীর’র সন্মিলিত প্রচেষ্ঠা, জনসাধারনের অংশগ্রহন ও সম্পৃক্ততা । সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় হারদী ইউনিয়ন একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত হোক। এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি। সকলকে ধন্যবাদ।

 

মোঃ আনিছুর রহমান

সচিব

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

ইউপিফরম-১

ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক বাজেট

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলাঃ আলমডাঙ্গা, জেলাঃ চুয়াডাঙ্গা

অর্থমরছরঃ ২০১৩-২০১৪

 

ক্রঃনং

সম্ভাব্য আয়ের খাতসমূহ

পরবর্তী বৎসরের

সম্ভাব্য আয়(টাকা)

(২০১৩-২০১৪)

চলতি বৎসরের বাজেট/

সংশোধিত বাজেট(টাকা)

(২০১৩-২০১৪) 

পূর্ববর্তী বৎসরের

প্রকৃত আয় (টাকা)

(২০১১-২০১২)

(ক)

আগত তহবিল

 

 

 

 

নিজস্ব উৎস

 

 

 

 

১. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর কর

১,০৫,৮৭০/-

১,০০,০০০/-

১৮,২৭৩/-

 

২. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর বকেয়া কর

৭,১৩৬/-

৫০,০০০/-

 

 

৩. রিক্সা/ভ্যান লাইসেন্স ফিস

-

৫,০০০/-

 

 

৪. খোয়াড় ইজারা থেকে প্রাপ্ত

২০,০০০/-

১৫,০০০/=

 

 

৫. গ্রাম আদালত

১৫,০০০/-

১০,০০০/=

 

 

৬. ট্রেড লাইসেন্স ফিস

৪০,৬৮০/-

৩৫,০০০/-

১৩,৩০০/-

 

৭. জন্ম নিবন্ধন ফিস

১০,০০০/-

১৫,০০০/-

৩৪৫০/-

 

৮. কৃষি আবাসিক ভবন হতে ট্যাক্স

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

৯. হাসপাতাল হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

১০. ব্যাংক হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪৫,০০০/-

১৯,২৫০/-

 

 

১১. ইক্ষু ক্রয় কেন্দ্রের উপর কর

-

২০,০০০/-

 

 

১২. হাটবাজার/বিবিধ

১৫,০০০/-

১২,০০০/-

৯,১০৩/-

 

১৩. ওয়ারিশ সূত্রে

৮৫,০০০/-

৫০,০০০/-

 

 

মোট=

৪,২৩,৬৮৬/-

৩,৭৩,২৫০/-

৪৪,১২৬/-

(খ)

সরকারি সূত্রে অনুদানঃ

 

 

 

 

১. সংস্থাপন

 

 

 

 

ক. চেয়ারম্যানের ও সদস্যদের সম্মানী ভাতা

১,৫৫,১০০/-

১,৫৫,৭০০/-

১,৫৫,৭০০/-

 

খ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

৩,৮৪,৯১৫/-

২,৮৮,৭৭০/-

২,৮৮,৭৭০/-

 

গ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

-

৩৩,৫০৫/-

 

 

২.অন্যান্য (উন্নয়ন খাত)

 

 

 

 

ক. ভূমি হস্তান্তরের ১% কর

২,৯৫,০০০/-

২,৫০,০০০/-

১,৭১,০৮১/-

 

খ. লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি)

১২,০০,০০০/-

১০,০০,০০০/-

৯,৯৯,৮৭০/-

 

গ. উপজেলা থেকে প্রাপ্ত এডিপি বরাদ্দ

২,০০,০০০/-

২,০০,০০০/-

১,৮৫,০০০/-

 

ঘ. কাবিখা বরাদ্দ(৩০ মেঃ টনের সমপরিমান অর্থ)

৬,৯০,০০০/-

৮,০০,০০০/=

৫,৫২,০০০/-

 

ঙ. টি আর বরাদ্দ ( ২৫ মেঃ টনের সমপরিমাণ অর্থ)

৫,৭৫,০০০/-

৬,০০,০০০/-

৩,৪৫,০০০/-

 

চ.কাবিখা বরাদ্দ

-

-

-

 

ছ. অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান

৩,০০,০০০/-

২,৫০,০০০/-

২,৭৩,০০০/-

 

স্থানীয় সরকার সূত্রেঃ

 

 

 

(গ)

১. উপজেলা পরিষদ কর্তৃক প্রদত্ত অর্থ(হাট ইজারা থেকে)

 

 

 

 

সর্বমোট আয়=

৪২,২৩,৭০১/-

৩৯,৫১,২২৫/-

৩১,১৪,৫৪৭/-

                                

                                                                                         শুভেচ্ছা                                      

 

            ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে একটি সুসম বাজেট প্রণয়ন অতিব গুরম্নত্বপূর্ণ বিষয়। ২০১২-২০১৩ অর্থ বৎসরের বাজেট অত্র পরিষদের ২য় বাজেট। দ্বায়িত্ব গ্রহনের পর বিগত ২০১১-২০১২ অর্থ বৎসরের বাজেট প্রণয়ন করা হয়। প্রণীত বাজেট এবং তা বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে যে বিষয়টি অনুমেয় তা হচ্ছে আভ্যন্তরিন আয় এবং সরকারের নিকট হতে অনুদান যথেষ্ট না পাওয়াই প্রস্তা বিত বাজেট এবং প্রকৃত বাজেটের মধ্যে অসম ব্যবধান থেকে যাচ্ছে। তথাপি এলাকার জনসাধারণের অকুণ্ঠ সমর্থন এবং বিভিন্ন বিভাগে দ্বায়িত্বরত সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীবৃন্দের আন্তরিক সহযোগীতায় সীমিত সম্পদের শতভাগ সুষ্ঠ ব্যবহারের ফলে ইতিমধ্যে বেশ কিছু দৃশ্যমান প্রকল্প বাস্তবায়ন করেছি। যা অত্র এলাকার আর্থসামাজিক উন্নয়নে ব্যাপক ভূমিকা রেখে চলেছে।   

বিগত ২০১১-২০১২  অর্থ বৎসরে হোল্ডিং ট্যাক্স আদায়ের হার খুব সন্তোষজনক। যেকারনে আদায়কৃত ট্যাক্সের অর্থে ইউনিয়ন পরিষদের আনুষঙ্গিক ব্যয় নির্বাহ করার পর  উলেস্নখযোগ্য তেমন কোন প্রকল্প গ্রহন বা বাস্তবায়ন করা যায়নি। তাই এলাকাবাসীর প্রতি আমার উদ্বাত্ত আহবান আপনাদের উপর ধার্য্যকৃত ইউপি ট্যাক্স পরিশোধ করম্নন। আমার বিশ্বাস অতিতের মত সকল সম্মানীত নাগরিক তাদের উপর ধার্য্য ট্যাক্স পরিশোধ করে তাদের নাগরিক দ্বায়িত্ব পালন করে এলাকার উন্নয়নে অংশ গ্রহন করবেন।

আভ্যন্তরিন এবং সরকারের নিকট হতে প্রাপ্ত সীমিত অর্থের সুনিশ্চিত ব্যবহার করে অতিতের যেকোন সময়ের তুলনায় মাত্র এক বৎসরে অনেকগুলো দৃশ্যমান প্রকল্প বাসস্তবায়ন করেছি। জনসাধারনের চাহিদার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সর্বাজ্ঞে যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অবকাঠামোগত ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করেছি। নির্বাচনের সময় ইউনিয়বাসী কে দেয়া প্রতিশ্রুতি আমি পুনর্ব্যক্ত করছি। আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান, প্রজ্ঞা, মেধা ও সুচিন্তা দিয়ে বাড়াদী ইউনিয়ন তথা এলাকাবাসীর সার্বিক উন্নয়নে আত্বনিয়োগ করব। এলাকাবাসীর নিকট আমার একটায় চাওয়া আমাকে সময় এবং সুযোগ দিন আমি আপনাদের সেবা দিব।

 

মোঃ তবারক হোসেন

চেয়ারম্যান

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

                   শুভেচ্ছা                                                 

 

উনিয়ন পরিষদের আবশ্যকীয় কর্মকান্ডের মধ্যে বাজেট প্রণয়ন একটি গুরম্নত্বপূর্ণ কার্য্য। একটি সঠিক এবং সুন্দর বাজেটের উপর ইউনিয়নের উন্নয়ন অনেকাংশে নির্ভরশীল। হারদী ইউনিয়ন বৃহৎ এলাকাবেষ্ঠিত অধিক জনবসতিপূর্ণ একটি জনপদ। ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ তবারক হোসেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এবং অত্যন্ত অভিজ্ঞ ব্যক্তি। অত্র ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে তিনি অত্যন্ত আন্তরিক। তার অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান ও সঠিক পরামর্শ অত্র বাজেট প্রণয়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেছে এজন্য তাকে আন্তরিক অভিনন্দন। এছাড়া সকল সদস্যবর্গ সঠিক তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে বাজেট প্রনয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে তাদেরকেও জানাই মোবারকবাদ।

 

          বাজেট বাস্তবায়নে প্রয়োজন জনপ্রতিনিধি এবং সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীর’র সন্মিলিত প্রচেষ্ঠা, জনসাধারনের অংশগ্রহন ও সম্পৃক্ততা । সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় হারদী ইউনিয়ন একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত হোক। এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি। সকলকে ধন্যবাদ।

 

মোঃ আনিছুর রহমান

সচিব

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

ইউপিফরম-১

ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক বাজেট

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলাঃ আলমডাঙ্গা, জেলাঃ চুয়াডাঙ্গা

অর্থমরছরঃ ২০১২-২০১৩

 

ক্রঃনং

সম্ভাব্য আয়ের খাতসমূহ

পরবর্তী বৎসরের

সম্ভাব্য আয়(টাকা)

(২০১৩-২০১৪)

চলতি বৎসরের বাজেট/

সংশোধিত বাজেট(টাকা)

(২০১৩-২০১৪) 

পূর্ববর্তী বৎসরের

প্রকৃত আয় (টাকা)

(২০১১-২০১২)

(ক)

আগত তহবিল

 

 

 

 

নিজস্ব উৎস

 

 

 

 

১. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর কর

১,০৫,৮৭০/-

১,০০,০০০/-

১৮,২৭৩/-

 

২. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর বকেয়া কর

৭,১৩৬/-

৫০,০০০/-

 

 

৩. রিক্সা/ভ্যান লাইসেন্স ফিস

-

৫,০০০/-

 

 

৪. খোয়াড় ইজারা থেকে প্রাপ্ত

২০,০০০/-

১৫,০০০/=

 

 

৫. গ্রাম আদালত

১৫,০০০/-

১০,০০০/=

 

 

৬. ট্রেড লাইসেন্স ফিস

৪০,৬৮০/-

৩৫,০০০/-

১৩,৩০০/-

 

৭. জন্ম নিবন্ধন ফিস

১০,০০০/-

১৫,০০০/-

৩৪৫০/-

 

৮. কৃষি আবাসিক ভবন হতে ট্যাক্স

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

৯. হাসপাতাল হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

১০. ব্যাংক হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪৫,০০০/-

১৯,২৫০/-

 

 

১১. ইক্ষু ক্রয় কেন্দ্রের উপর কর

-

২০,০০০/-

 

 

১২. হাটবাজার/বিবিধ

১৫,০০০/-

১২,০০০/-

৯,১০৩/-

 

১৩. ওয়ারিশ সূত্রে

৮৫,০০০/-

৫০,০০০/-

 

 

মোট=

৪,২৩,৬৮৬/-

৩,৭৩,২৫০/-

৪৪,১২৬/-

(খ)

সরকারি সূত্রে অনুদানঃ

 

 

 

 

১. সংস্থাপন

 

 

 

 

ক. চেয়ারম্যানের ও সদস্যদের সম্মানী ভাতা

১,৫৫,১০০/-

১,৫৫,৭০০/-

১,৫৫,৭০০/-

 

খ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

৩,৮৪,৯১৫/-

২,৮৮,৭৭০/-

২,৮৮,৭৭০/-

 

গ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

-

৩৩,৫০৫/-

 

 

২.অন্যান্য (উন্নয়ন খাত)

 

 

 

 

ক. ভূমি হস্তান্তরের ১% কর

২,৯৫,০০০/-

২,৫০,০০০/-

১,৭১,০৮১/-

 

খ. লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি)

১২,০০,০০০/-

১০,০০,০০০/-

৯,৯৯,৮৭০/-

 

গ. উপজেলা থেকে প্রাপ্ত এডিপি বরাদ্দ

২,০০,০০০/-

২,০০,০০০/-

১,৮৫,০০০/-

 

ঘ. কাবিখা বরাদ্দ(৩০ মেঃ টনের সমপরিমান অর্থ)

৬,৯০,০০০/-

৮,০০,০০০/=

৫,৫২,০০০/-

 

ঙ. টি আর বরাদ্দ ( ২৫ মেঃ টনের সমপরিমাণ অর্থ)

৫,৭৫,০০০/-

৬,০০,০০০/-

৩,৪৫,০০০/-

 

চ.কাবিখা বরাদ্দ

-

-

-

 

ছ. অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান

৩,০০,০০০/-

২,৫০,০০০/-

২,৭৩,০০০/-

 

স্থানীয় সরকার সূত্রেঃ

 

 

 

(গ)

১. উপজেলা পরিষদ কর্তৃক প্রদত্ত অর্থ(হাট ইজারা থেকে)

 

 

 

 

সর্বমোট আয়=

৪২,২৩,৭০১/-

৩৯,৫১,২২৫/-

৩১,১৪,৫৪৭/-

              ]

              শুভেচ্ছা                                      

 

            ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে একটি সুষম বাজেট প্রণয়ন অতিব গুরম্নত্বপূর্ণ বিষয়। ২০১১-২০১২ অর্থ বৎসরের বাজেট অত্র পরিষদের ১ম বাজেট।  এলাকাবাসীর প্রতি আমার উদ্বাত্ত আহবান আপনাদের উপর ধার্য্যকৃত ইউপি ট্যাক্স পরিশোধ করুন। আমার বিশ্বাস অতিতের মত সকল সম্মানীত নাগরিক তাদের উপর ধার্য্য ট্যাক্স পরিশোধ করে তাদের নাগরিক দ্বায়িত্ব পালন করে এলাকার উন্নয়নে অংশ গ্রহন করবেন।

আভ্যন্তরিন এবং সরকারের নিকট হতে প্রাপ্ত সীমিত অর্থের সুনিশ্চিত ব্যবহার করে জনসাধারনের চাহিদার প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে সর্বাজ্ঞে যোগাযোগ, স্বাস্থ্য, শিক্ষা ও অবকাঠামোগত ব্যবস্থার উন্নয়নে কাজ করার চেষ্টা করবো। নির্বাচনের সময় ইউনিয়বাসী কে দেয়া প্রতিশ্রুতি আমি পুনর্ব্যক্ত করছি। আমার দীর্ঘদিনের অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান, প্রজ্ঞা, মেধা ও সুচিন্তা দিয়ে বাড়াদী ইউনিয়ন তথা এলাকাবাসীর সার্বিক উন্নয়নে আত্বনিয়োগ করব। এলাকাবাসীর নিকট আমার একটায় চাওয়া আমাকে সময় এবং সুযোগ দিন আমি আপনাদের সেবা দিব।

 

মোঃ তবারক হোসেন

চেয়ারম্যান

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

                   শুভেচ্ছা                                      

 

উনিয়ন পরিষদের আবশ্যকীয় কর্মকান্ডের মধ্যে বাজেট প্রণয়ন একটি গুরম্নত্বপূর্ণ কার্য্য। একটি সঠিক এবং সুন্দর বাজেটের উপর ইউনিয়নের উন্নয়ন অনেকাংশে নির্ভরশীল। হারদী ইউনিয়ন বৃহৎ এলাকাবেষ্ঠিত অধিক জনবসতিপূর্ণ একটি জনপদ। ইউপি চেয়ারম্যান জনাব মোঃ তবারক হোসেন একজন বিশিষ্ট শিক্ষানুরাগী এবং অত্যন্ত অভিজ্ঞ ব্যক্তি। অত্র ইউনিয়নের সার্বিক উন্নয়নে তিনি অত্যন্ত আন্তরিক। তার অভিজ্ঞতালব্দ জ্ঞান ও সঠিক পরামর্শ অত্র বাজেট প্রণয়নে মূখ্য ভূমিকা পালন করেছে এজন্য তাকে আন্তরিক অভিনন্দন। এছাড়া সকল সদস্যবর্গ সঠিক তথ্য ও পরামর্শ দিয়ে বাজেট প্রনয়নে সহায়ক ভূমিকা পালন করেছে তাদেরকেও জানাই মোবারকবাদ।

 

          বাজেট বাস্তবায়নে প্রয়োজন জনপ্রতিনিধি এবং সরকারী কর্মকর্তা/কর্মচারীর’র সন্মিলিত প্রচেষ্ঠা, জনসাধারনের অংশগ্রহন ও সম্পৃক্ততা । সকলের সন্মিলিত প্রচেষ্টায় হারদী ইউনিয়ন একটি মডেল ইউনিয়নে পরিণত হোক। এই আশাবাদ ব্যক্ত করছি। সকলকে ধন্যবাদ।

 

মোঃ আনিছুর রহমান

সচিব

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ।

 

ইউপিফরম-১

ইউনিয়ন পরিষদের বার্ষিক বাজেট

৪নং বাড়াদী ইউনিয়ন পরিষদ

উপজেলাঃ আলমডাঙ্গা, জেলাঃ চুয়াডাঙ্গা

অর্থমরছরঃ ২০১১-২০১২

 

 

সম্ভাব্য আয়ের খাতসমূহ

পরবর্তী বৎসরের

সম্ভাব্য আয়(টাকা)

(২০১৩-২০১৪)

চলতি বৎসরের বাজেট/

সংশোধিত বাজেট(টাকা)

(২০১৩-২০১৪) 

পূর্ববর্তী বৎসরের

প্রকৃত আয় (টাকা)

(২০১১-২০১২)

(ক)

আগত তহবিল

 

 

 

 

নিজস্ব উৎস

 

 

 

 

১. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর কর

১,০৫,৮৭০/-

১,০০,০০০/-

১৮,২৭৩/-

 

২. বসত বাড়ির বাৎসরিক মূল্যের উপর বকেয়া কর

৭,১৩৬/-

৫০,০০০/-

 

 

৩. রিক্সা/ভ্যান লাইসেন্স ফিস

-

৫,০০০/-

 

 

৪. খোয়াড় ইজারা থেকে প্রাপ্ত

২০,০০০/-

১৫,০০০/=

 

 

৫. গ্রাম আদালত

১৫,০০০/-

১০,০০০/=

 

 

৬. ট্রেড লাইসেন্স ফিস

৪০,৬৮০/-

৩৫,০০০/-

১৩,৩০০/-

 

৭. জন্ম নিবন্ধন ফিস

১০,০০০/-

১৫,০০০/-

৩৪৫০/-

 

৮. কৃষি আবাসিক ভবন হতে ট্যাক্স

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

৯. হাসপাতাল হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪০,০০০/-

৩০,০০০/-

 

 

১০. ব্যাংক হতে ট্যাক্স (বকেয়াসহ)

৪৫,০০০/-

১৯,২৫০/-

 

 

১১. ইক্ষু ক্রয় কেন্দ্রের উপর কর

-

২০,০০০/-

 

 

১২. হাটবাজার/বিবিধ

১৫,০০০/-

১২,০০০/-

৯,১০৩/-

 

১৩. ওয়ারিশ সূত্রে

৮৫,০০০/-

৫০,০০০/-

 

 

মোট=

৪,২৩,৬৮৬/-

৩,৭৩,২৫০/-

৪৪,১২৬/-

(খ)

সরকারি সূত্রে অনুদানঃ

 

 

 

 

১. সংস্থাপন

 

 

 

 

ক. চেয়ারম্যানের ও সদস্যদের সম্মানী ভাতা

১,৫৫,১০০/-

১,৫৫,৭০০/-

১,৫৫,৭০০/-

 

খ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

৩,৮৪,৯১৫/-

২,৮৮,৭৭০/-

২,৮৮,৭৭০/-

 

গ. সচিব ও অন্যান্য কর্মচারীদের উৎসব ভাতা

-

৩৩,৫০৫/-

 

 

২.অন্যান্য (উন্নয়ন খাত)

 

 

 

 

ক. ভূমি হস্তান্তরের ১% কর

২,৯৫,০০০/-

২,৫০,০০০/-

১,৭১,০৮১/-

 

খ. লোকাল গভর্ন্যান্স সাপোর্ট প্রজেক্ট (এলজিএসপি)

১২,০০,০০০/-

১০,০০,০০০/-

৯,৯৯,৮৭০/-

 

গ. উপজেলা থেকে প্রাপ্ত এডিপি বরাদ্দ

২,০০,০০০/-

২,০০,০০০/-

১,৮৫,০০০/-

 

ঘ. কাবিখা বরাদ্দ(৩০ মেঃ টনের সমপরিমান অর্থ)

৬,৯০,০০০/-

৮,০০,০০০/=

৫,৫২,০০০/-

 

ঙ. টি আর বরাদ্দ ( ২৫ মেঃ টনের সমপরিমাণ অর্থ)

৫,৭৫,০০০/-

৬,০০,০০০/-

৩,৪৫,০০০/-

 

চ.কাবিখা বরাদ্দ

-

-

-

 

ছ. অতি দরিদ্রদের জন্য কর্মসংস্থান

৩,০০,০০০/-

২,৫০,০০০/-

২,৭৩,০০০/-

 

স্থানীয় সরকার সূত্রেঃ

 

 

 

(গ)

১. উপজেলা পরিষদ কর্তৃক প্রদত্ত অর্থ(হাট ইজারা থেকে)

 

 

 

 

সর্বমোট আয়=

৪২,২৩,৭০১/-

৩৯,৫১,২২৫/-

৩১,১৪,৫৪৭/-

ছবি



Share with :

Facebook Twitter